Barisal Report .Com । বরিশাল রিপোর্ট .কম

ঢাকা, ২৪শে মে, ২০১৯ ইং


প্রকাশ : মে ১০, ২০১৯ , ৫:০৫ অপরাহ্ণ
নিউজ করে লাভ নেই ১০% দিয়া কাজ শুরু করেছি

বরিশাল রিপোর্ট॥ সদর উপজেলার সায়েস্তাবাদ ইউনিয়নে ২ ও ৩নং ওয়ার্ডের চরআইচা এলাকায় ২০১৮ ও ২০১৯ অর্থবছরের দুর্যোগ ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের অধীনে ব্রিজ নির্মাণ কাজে ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। নিন্মমানের নির্মাণ সামগ্রী দিয়ে ঠিকাদার ব্রিজ নির্মান কাজ অব্যাহত রেখেছে।
ব্রিজ নির্মান কাজের ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান মের্সাস রাতুল এন্টারপ্রাইজের প্রোপাইটর মোঃ রুবেলের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, নিউজ করলে কি হবে, যে পরির্দশনে আসবে তাকে (পিআইও) এ কাজের জন্য আগেই ১০% দিয়া কাজ শুরু করেছি। এ ব্যাপারে উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা (পিআইও) কামরুজ্জামানের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন-ভাই ঠিকাদার আপনাদের সাথে যোগাযোগ করবে নিউজ করার দরকার নাই।
সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, ত্রাণ ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপণা অধিদপ্তরের অর্থায়নে বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচীর আওতায় গ্রামীণ রাস্তায় সেতু/কালভার্ট নির্মাণ প্রকল্পে গত এপ্রিল মাসে ২০ লাখ টাকা ব্যয়ে ওই ব্রিজ নির্মান কাজের টেন্ডার আহবান করা হয়। লটারির মাধ্যমে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান মের্সাস রাতুল এন্টারপ্রাইজ ব্রিজ নির্মানের কার্যাদেশ পায়। স্থানীয় বাসিন্দারা অভিযোগ করেন, শুরুতেই ঠিকাদারের লোকজন নিন্মমানের নির্মান সামগ্রী দিয়ে জনগুরুত্বপূর্ণ এ ব্রিজের নির্মান কাজ শুরু করেছেন। তাদের বাঁধা প্রদান করা সত্বেও রহস্যজনক কারণে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের ম্যানেজ করে ঠিকাদারের শ্রমিকরা নির্মান কাজ অব্যাহত রেখেছেন।
নিন্মমানের নির্মান সামগ্রী ও কাজ শুরুর আগেই সরকারী কর্মকর্তাকে ১০% দেয়ার অভিযোগের ব্যাপারে বরিশালের জেলা প্রশাসক এসএম অজিয়র রহমান বলেন, বিষয়টি খোঁজখবর নিয়ে দেখা হবে। ব্রিজ নির্মানে কোন অনিয়ম পাওয়া গেলে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

আপনার মন্তব্য

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত
[tabs]