Barisal Report .Com । বরিশাল রিপোর্ট .কম

ঢাকা, ২৩শে মার্চ, ২০১৯ ইং


প্রকাশ : মার্চ ১১, ২০১৯ , ১১:১০ অপরাহ্ণ
পটুয়াখালী পৌরসভার ১৯৩ কর্মচারীকে একসঙ্গে অব্যাহতি!

অনলাইন ডেস্ক// পটুয়াখালী পৌরসভার মাস্টার রোলের ১৯৩ জন কর্মচারী দীর্ঘ ৭-৮ ধরে অফিস না করা এবং কাজে যোগদান না করার অভিযোগে তাদেরকে অব্যাহতি দেয়া হয়েছে।

রোববার পটুয়াখালী পৌরসভার মেয়র মহিউদ্দিন আহমেদ এ অব্যাহতি প্রদান করেন।

বিগত আমলে অবৈধভাবে নিয়োগপ্রাপ্ত হয়ে এসব কর্মচারী র্দীঘদিন ধরে কোনো কাজ না করেই অফিসে এসে হাজিরা খাতায় স্বাক্ষর দিয়ে প্রতি মাসে বেতন-ভাতা উত্তোলন করত বলে পৌরসভা সূত্রে জানা গেছে।

পটুয়াখালী পৌরসভার মেয়র মহিউদ্দিন আহমেদ জানান, সাবেক মেয়রের আমলে অবৈধভাবে পটুয়াখালী পৌরসভায় কম্পিউটার শাখা, পরিচ্ছন্নকর্মীসহ বিভিন্ন শাখায় ১৯৩ জন কর্মচারী নিয়োগ করা হয়। এসব কর্মচারীর মধ্যে বেশির ভাগই সাবেক মেয়রের আত্মীয়স্বজন এবং ব্যক্তিগত প্রতিষ্ঠানে কর্মরত রয়েছে বলে জানা গেছে।

এমনকি সাবেক মেয়র শফিকুল ইসলাম সম্পাদিত একটি স্থানীয় পত্রিকায় কর্মচারীরাও রয়েছে এই তালিকায়।

পটুয়াখালী পৌরসভা সূত্রে জানা গেছে, ২০১১-১২ সালের দিকে অর্থাৎ সাবেক মেয়রের আমলে অবৈধভাবে অন্তত ১৯৩ জন কর্মচারী বিভিন্ন শাখায় মাস্টার রোলে নিয়োগ দেয়া হয়। সে তালিকায় রয়েছে সাবেক মেয়রের ব্যক্তিগত প্রতিষ্ঠানের কর্মচারীরাও। এসব কর্মচারী কোনো কাজ না করে শুধু অফিসে এসে হাজিরা খাতায় স্বাক্ষর দিয়ে প্রতি মাসে আনুমানিক ৫ লাখ টাকা উত্তোলন করত।

মেয়র বলেন, দীর্ঘ ৭-৮ বছরে এসব কর্মচারী অন্তত ৫ কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়েছে। যে কারণে বর্তমানে পটুয়াখালী পৌরসভাটি বিভিন্ন খাতে ২৩ কোটি টাকা দেনা রয়েছে।

এ ঘটনায় সাবেক মেয়রের সঙ্গে যোগাযোগ করার চেষ্টা হলে তার ব্যবহৃত ফোনটি বন্ধ পাওয়া যায়।

আপনার মন্তব্য

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত
[tabs]
এই পাতার আরো খবর