Barisal Report .Com । বরিশাল রিপোর্ট .কম

ঢাকা, ২০শে জুন, ২০১৯ ইং


প্রকাশ : মার্চ ২৪, ২০১৯ , ২:৩০ পূর্বাহ্ণ
বাবুগঞ্জে চেয়ারম্যান পদে কাজী দুলাল ও ভাইস – চেয়ারম্যান পদে শিল্পির বিজয়ের সম্ভাবনা!!!

বিশেষ প্রতিনিধিঃ বাবুগঞ্জে রাত পেহালেই সকাল ৮ টায় উপজেলা পরিষদ নির্বাচন ২০১৯ এর ভোট গ্রহন শুরু হবে। প্রচার প্রচারনা গনংযোগ উঠান বৈঠক সহ নানা কার্যক্রমের পর কার সেই মাহেন্দ্র ক্ষনের অপেক্ষা সকল দলের প্রার্থীর এবং ভোটারদের। পছন্দের প্রার্থীকে ভোট দিয়ে উপজেলার মসনদের বসানোর দিন আগামী কাল। বাবুগঞ্জে উপজেলা চেয়াম্যান পদে ৪ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দিতা করছেন ও ভাইসচেয়ারম্যান পদে ৫ জন। মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে বিনা প্রতিদ্বন্দিতায় সাবেক উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ফারজানা বিনতে ওহাব নির্বাচিত হয়েছেন।

উপজেলার প্রত্যান্ত অঞ্চল ঘুরে সাধারন ভোটারদের সাথে কথা বলে মাঠের অবস্থন সম্পর্কে যে ধারনা পাওয়া যায় তা হল উপজেলা চেয়ারম্যান পদে নৌকা প্রতীকে আওয়ামীলীগের সভাপতি কাজী ইমদাদুল হক দুলাল ও ভাইস চেয়ারম্যান পদে ইঞ্জিনিয়ার শাহরিয়ার আহমেদ শিল্পি ভোটারদের পছন্দের তালিকায় অনেকটাই এগিয়ে রয়েছেন। কাজী ইমদাদুর হক দুলাল উপজেলায় একজন ক্লিন ইমেজের নেতা হিসেবে পরিচিত ।

দল মত নির্বিশেষে তার ব্যাপক জনপ্রিয়তা রয়েছে এখানে। উপজেলা আওয়ামীলীগের সকল নেতা কর্মী নিবেদিতপ্রান তার বিজয়ের লক্ষে কাজ করে চলছে। অপরদিকে তার প্রতিদ্বন্দি প্রর্থী হিসেবে রয়েছেন ওয়ার্কার্স পার্টি মনোনিত হাতুড়ী প্রতিকের মোজাম্মেল হক ফিরোজ , কিল্পধারার এনামুল হক রাজু , ও তৃমূলের আওয়ামীলীগের সদস্য মোস্তাক আহমেদ রিপন। রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা মনে করেন বিগত নির্বাচনের হিসাব করে দেখলে বাবুগঞ্জে ওয়ার্কার্স পার্টির দলিও ভোট অনেক কম এছাড়াও স্থানীয় রাজনিতিতে মাজাম্মেল হক ফিরোজের তৃনমূলে তেমন কোন পদচারনা লি না বললে চলে বিপরীতে কাজী ইমদাদুল হক দুলালের তৃনমুলের সাথে ্কটি ভাল পরিচিতি রয়েছে। যার ফলে সাধারন ভোটারদের সিংহভাগ দুলালের পক্ষেই ৭০ ভাগ সমর্থনের সম্ভাবনা রয়েছে। অপরদিকে ভাইচ চেয়ার ম্যান পদে প্রতিদ্বন্দিতা করছেন ৫ জন প্রার্থী । আওয়ামীলীগ থেকে ভাইস চেয়ারম্যান পদটি উন্মুক্ত করায় এবার মোট প্রার্থীর ৪ জনই আ’লীগের! অপরজন ওয়ার্কার্স পার্টির ।

আওয়ামীলীগের প্রার্থীরা হলেন উপজেলা আলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ইঞ্জিঃ শাহরিয়ার আহমেদ শিল্পি , শ্রম বিষয়ক সম্পাদক জাঙ্গীর আকন, রহমতপুর ইউনিয়ন সম্পাদক মাস্টার মোঃ শহিদুল ইসলাম মল্লিক, ও ইকবাল আহমেদ আজাদ। ওয়ার্কার্স পার্টির মনোনিত প্রর্থী হলেন মোঃ জামাল হোসেন।উপজেলার প্রত্যান্ত অঞ্চল ঘুরে ভোটারদের সাথে আলাপের মাধ্যমে যে বিষয়টি উঠে এসেছে তা হল এবার এই পদটিতে ত্রিমুখী লড়াইয়ের সম্ভাবনা দেখছেন তারা। আর লড়াইয়ে ইঞ্জিঃ শাহরিয়ার আহমেদ শিল্পি, মাস্টার মোঃ শহিদুল ইসলাম মল্লিক, মোঃ জামাল হোসেন রয়েছেন এগিয়ে। ইঞ্জিনিয়ার শাহরিয়ার আহমেদ শিল্পি উপজেলা আ’লীগ এর সাংগঠনিক সম্পাদক এবং এর বাইরে তার আরেকটি পরিচয়- তিনি সাবেক সচিব ইতিহাসবিদ সিরাজউদ্দিন আহমেদ এর ছেলে ।

পাশাপাশি একজন লেখক এবং অনলাইন এক্টিভিটিস। পারিবারিক ঐতিহ্যে ই তিনি রাজনৈতিক মাঠে পরিচিত মূখ । তাই উপজেলা আ’লীগের ভোট ব্যাংক এর একটি বড় অংশ তার পক্ষে জমা পড়ার সমম্ভাবনা রয়েছে । লেখক এবং অনলাইন এক্টিভিটিস হওয়ায় তরুন প্রজন্মের কাছেও তিনি বেশ জনপ্রীয় মূখ হওয়ায় নতুন ভোটারদের অনেক ভোট ই পেতে পারেন তিনি। অপরদিকে জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আলীগের প্রর্থী না থাকায় মহাজোটের জা’পার হয়ে কাজ করায় বর্তমান এমপি গোলাম কিবরিয়া টিপু সহ উপজেলা জাতীয় পার্টির সবার কাছেই তিনি গ্রহনযোগ্য, যার ফলে জাতীয় পার্টির বড় একটি ভোট ও রয়েছে তার প্রাপ্তির ঝুলিতে। তার বিপরীতে আওয়ামীলীগ এর আরেক প্রর্থী ইকবাল আহমেদ আজাদ অথবা শহিদুল ইসলাম মল্লিক প্রতিদ্বন্দিতায় আসার সম্ভাবনা রয়েছে।

আপনার মন্তব্য

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত
[tabs]