Barisal Report .Com । বরিশাল রিপোর্ট .কম

ঢাকা, ২৬শে জুন, ২০১৯ ইং


প্রকাশ : জুন ২৭, ২০১৮ , ৫:৩৪ অপরাহ্ণ
বড় দল বলেই আর্জেন্টিনাকে জিতিয়ে দিয়েছে রেফারি: মোসেস

অনলাইন ডেস্ক:

আর্জেন্টিনার কাছে হেরে স্বপ্ন ভঙ্গের ম্যাচে রেফারির বিরুদ্ধে পক্ষপাতিত্বের অভিযোগ এনেছেন নাইজেরিয়ার তারকা ফরোয়ার্ড ভিক্টর মোসেস। তার অভিযোগ, সমতায় থাকাকালীন আর্জেন্টিনার বক্সের মধ্যে হাতে বল লেগে গিয়েছিল মার্কাস রোহোর। আর্জেন্টিনার খেলোয়াড়ের হাতে বল লাগার কথা স্বীকারও করেছেন ম্যাচ রেফারি। কিন্তু সেটা কেন পেনাল্টি দেওয়া হলো না সেই প্রশ্নের উত্তর দিতে পারেননি তিনি। নাইজেরিয়ার হয়ে একমাত্র গোলটি করা মোসেসের দাবি, সেটা হলেও তখন ২-১ গোলে আমরাই এগিয়ে থাকতাম।

মজার বিষয় হলো ম্যাচের ৮৬ মিনিট দুর্দান্ত এক গোল করে আফ্রিকান জায়ান্ট কিলারদের স্বপ্ন ভেঙে দেন সেই মার্কাস রোহোই। আর এ কারণেই কষ্টের জ্বালা বেশি অনুভব করছেন নাইজেরিয়ানরা।

সাবেক চেলসি মিডফিল্ডারের কথায়, খেলায় হার-জিত থাকবে। কেউ হারবে, কেউ জিতবে-এটাই স্বাভাবিক। কিন্তু নিজেদের বিদায়টাকে স্বাভাবিকভাবে নিতে পারছে না তিনি। তার অভিযোগ, বড় দল বলে আর্জেন্টিনার হয়ে রেফারি কাজ করেছেন। এ কারণে হাতে বল লাগার পরও তুর্কি রেফারি কানিত সাকির স্পট কিকের সিদ্ধান্ত দেননি।

                মোসেসকে পাশ কাটিয়ে জালে বল জড়ান রাহো

মোসেস বলেন, যদি আপনি এটা আবারও দেখেন, তবে আমরা সবাই বলব এটা পেনাল্টি। কিন্তু রেফারি নিশ্চিত হওয়ার জন্য পুনরায় দেখতে গিয়েছিলেন। এরপর ফিরে এসে বলেন, না, এটা পেনাল্টি না। কিন্তু যদি আপনি রিপ্লে দেখেন, তবে এটা পুরোপুরি পেনাল্টিই দেখবেন।’

এরপর ভিএআর প্রযুক্তি রাখা নিয়েও প্রশ্ন তোলেন নাইজেরিয়ান ফরোয়ার্ড। তার দাবি, সঠিক সিদ্ধান্ত নিতে ভিএআর প্রযুক্তি রাখা। কিন্তু যদি সেটা না হয়, তবে এটা রাখার কোনো মানে হয় না।’

নিজের কথার স্বপক্ষে যুক্তিও দেখান মোসেস। এজন্য তিনি টেনে আনেন ইরান-পর্তুগালের ম্যাচটি। যে ম্যাচে ইরানের মোরতেজাকে কনুই দিয়ে আঘাত করার পরও রোনালদোকে লাল কার্ড দেয়া হয়নি।

মোসেসের অভিযোগ, নাইজেরিয়ার তুলনায় আর্জেন্টিনা বড় দল বলেই পক্ষপাতিত্ব করা হয়েছে। তিনি বলেন, ‘বড় দেশগুলোর পক্ষেই সিদ্ধান্ত হয়, ছোট দলগুলোর বেলায়? আমি এটা নিয়ে কিছু বলতে চাই না। আপনারা নিজেরাই নিজেদের মতামত দিন, আমি শুধু এটুকুই বলতে পারি।’

এরপর নাইজেরিয়ান তারকা যোগ করেন, তবে ওইটা অবশ্যই পেনাল্টি ছিল। আমি বুঝতে পারছি না কেন ওই পেনাল্টি দেওয়া হলো না? আমি রেফারিকে জিজ্ঞাসা করেছিলাম, বল কী হাতে লেগেছে? রেফারির উত্তর ছিল, হ্যাঁ। এরপর আমি বলেছিলাম, তাহলে আপনি কেন পেনাল্টি দিলেন না? রেফারির উত্তর, জানি না। আমিও আপনার মতো জানি না। কিন্তু ওটা পেনাল্টি দেওয়া প্রয়োজন ছিল।

প্রসঙ্গত, আর্জেন্টিনা ও নাইজেরিয়ার ম্যাচ যখন ১-১ গোলে সমতায় তখন ডি-বক্সে বল ঠেকাতে গিয়ে সেটা হেড থেকে হাতে গিয়ে লাগে রাহোর। সাথে সাথে নাইজেরিয়ান খেলোয়াড়রা হ্যান্ডবলের অভিযোগ তোলের। এরপর রেফারি সেটি নিশ্চিত হতে ‘ভিএআর’ দিয়ে দ্বিতীয়বার দেখেন। সেখানে দেখেন রোহো অনিচ্ছাকৃতভাবে বলটি হাতে লাগানোয় সিদ্ধান্ত হয়, পেনাল্টি না দেয়ার।

 

আপনার মন্তব্য

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত
[tabs]