Barisal Report .Com । বরিশাল রিপোর্ট .কম

ঢাকা, ২৪শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ইং


প্রকাশ : ফেব্রুয়ারি ১, ২০১৯ , ৫:০১ অপরাহ্ণ
রাজাপুরে গণধর্ষণ মামলার প্রধান আসামীর গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার: চিরকুটে লেখা ধর্ষণের পরিনতি ইহাই, ধর্ষকরা সাবধান!

রহিম রেজা, ঝালকাঠি //ঝালকাঠির রাজাপুরে রাকিব মোল্লা (২০) নামে গণধর্ষণ মামলার এক আসামীর গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। শুক্রবার দুপুরে উপজেলার রাজাপুর সদর ইউনিয়নের আঙ্গারিয়া গ্রামের রাজাপুর-কাঠালিয়া সংযোগ সড়কের পূর্ব পাশের একটি পরিত্যক্ত ইটভাটা এলাকার নির্জন ভিটার পাশে ধানক্ষেত থেকে তাঁর লাশ উদ্ধার করা হয়।

নিহতের বুকে একটি কাগজের চিরকুট লেখা রয়েছে “আমি পিরোজপুরের ভান্ডারিয়ার কারিমা আক্তারের ধর্ষক রাকিব। ধর্ষণের পরিনতি ইহাই। ধর্ষকরা সাবধান। হারকিউলিস। পুলিশ জানায়, ভান্ডারিয়া থানার এক মাদ্রাসা ছাত্রী গণধর্ষণ মামলার প্রধান আসামী রাকিব ঢাকার শ্যামলির একটি প্রাইভেট বিশ^বিদ্যালয়ে অধ্যায়নরত শিক্ষার্থী ছিলো। গত ৬ দিন আগে এ গণধর্ষণ মামলার ২ নম্বর আসামীয় সজলেরও লাশও গুলিবিদ্ধ অবস্থায় কাঠালিয়ার বিনাপানি থেকে উদ্ধার করা হয়।

নিহত রাকিব পার্শ্ববর্তী পিরোজপুরের ভান্ডারিয়া উপজেলার নদমুলা ইউনিয়নের চিংগুরিয়া ভিটাবাড়িয়া গ্রামের কালাম মোল্লার ছেলে। এ স্কুলছাত্রীকে গণধর্ষণ মামলার ২ নম্বর আসামী পিরোজপুরের ভান্ডারিয়া উপজেলার নদমুলা গ্রামের শাহ আলম জোমাদ্দারের ছেলে সজলের (২৫) লাশও ২৬ জানুয়ারি দুপুরে কাঠালিয়ার বীণাপানি গ্রাম থেকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় উদ্ধার করে পুলিশ। সজল জোমাদ্দারকেও হত্যা করে তার গলায়ও চিরকুট বেঁধে লাশ ফেলে রাখা হয়েছিল ধানক্ষেতে।

ওই ঘটনায় সজলকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করার হয়েছে দাবি করে নিহতের বাবা শাহ আলম জোমাদ্দার বাদী হয়ে ২৯ জানুয়ারি কাঠালিয়া থানায় এ মামলা করেন। মামলায় ধর্ষণের শিকার মাদ্রাসা ছাত্রীর বাবাসহ নয়জনকে আসামী করা হয়েছে। সজল জোমাদ্দার বাংলালিংক কম্পানিতে চাকরি নিয়ে ঢাকার বাড্ডা এলাকায় বসবাস করতেন। গত ২২ জানুয়ারি তাকে অপহরণ হয় বলে মামলায় উল্লেখ করা হয়। রাজাপুর থানার ওসি মোঃ জাহিদ হোসেন জানান, দুপুর ১২ টার দিকে এক কৃষক ওই পথদিয়ে মাঠে যাওয়ার সময় রাকিবের লাশ পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয়দের জানালে স্থানীয়রা পুলিশ খবর দেয়। পুলিশ গিয়ে লাশ ও লাশের ঘটনায় চিরকুট দেখে ভান্ডারিয়া থানা পুলিশকে অবগত করে তার পরিচয় জানতে পারেন এবং কে বা কারা তাদের হত্যা করে লাশ ফেলে গেছে, সে বিষয়ে কিছুই বলতে পারছে না পুলিশ।

রাকিবের লাশের সঙ্গে চিরকুটে হত্যাকারী নিজের পরিচয় হিসেবে লিখে রেখে গেছে গ্রিক পুরানের বীর হারকিউলিসের নাম। রাকিবের মাথায়, মুখে ও পিঠে আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে। রক্তাত্ত গুলির জখমের চিহ্ন বলে জানায় পুলিশ। পুলিশের উধ্বর্তন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। এ ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে বলেও জানান ওসি। গত ১২ জানুয়ারি সকালে ভান্ডারিয়া উপজেলার হেতালিয়া গ্রামে এক মাদ্রাসা ছাত্রীকে পানের বরজে নিয়ে দেলবেঁধে ধর্ষণ করা হয়। ওই ঘটনার পর মেয়েটির পরিবার গত ১৭ জানুয়ারি ভান্ডারিয়া থানায় নারী শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করে। আবুল কালাম মোল্লার ছেলে রাকিব হাসান ও আলম জোমাদ্দারের ছেলে সজল জোমাদ্দারকে আসামি করা হয়।

আপনার মন্তব্য

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত
[tabs]
এই পাতার আরো খবর