রবিবার, ০৯ মে ২০২১, ০১:৩২ অপরাহ্ন

কুয়াকাটায় অপহ্নত কিশোরীকে উদ্ধার করেছে পুলিশ,থানায় মামলা।

কুয়াকাটায় অপহ্নত কিশোরীকে উদ্ধার করেছে পুলিশ,থানায় মামলা।

কুয়াকাটা প্রতিনিধিঃ বরগুনা জেলার তালতলী থেকে কুয়াকাটা আত্মীয়ের বাড়িতে বেড়াতে আসা এক কিশোরীকে অপহরণের অভিযোগ উঠেছে।
অপহরণের সাড়ে ৫ ঘন্টা পর বুবধার(৭ এপ্রিল ) রাত সাড়ে তিনটার দিকে কুয়াকাটা হাসপাতাল সংলগ্ন তুলাতলী এলাকায় থেকে অপহ্নত ওই কিশোরীকে উদ্ধার করেছে মহিপুর থানা পুলিশ।
এসময় পুলিশ অপহরণে ব্যবহৃত (ঢাকা মেট্রো গ-১৯০৬৯৫) একটি প্রাইভেটকার জব্দ করেছে।
তবে শুক্রবার(৯ এপ্রিল ) বিকেল পর্যন্ত অপহণের সাথে জড়িতদের কাউকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়নি পুলিশ।
এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার (৮ এপ্রিল) ৬ জনের নাম উল্লেখসহ আরোও ৪-৫ জনকে অজ্ঞাত আসামি করে একটি অপহরণ মামলা দায়ের করেছে ওই কিশোরীর বাবা ফারুক হোসেন।
মামলার বিররণে জানা যায়, গত বুধবার (৭ এপ্রিল) রাত ১০ টায় ৪ যুবক ওই কিশোরীকে বহনকারী মোটরসাইকেলের গতিরোধ করে প্রাইভেটকারে উঠিয়ে নিয়ে যায়। এতে সহযোগিতা করে আরও দুই যুবক।
আপহরণকারীরা হলো- লতাচাপলী ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি মহিউদ্দিন মুসুল্লী সুলতানের ছেলে ছাত্রদলের সাবেক দপ্তর সম্পাদক জুয়েল মুসুল্লী. ইউনিয়ন বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক মতিউর রহমানের ছোট ভাই মামুন. স্থানীয় বিএনপি নেতা দেলোয়ার হাওলাদারের ছেলে ছাত্রদল নেতা রনি. নাজমুল. শাহিন ও ইসমাইল।
পুলিশ সুত্রে আরও জানান অপহরণকারীরা ওই কিশোরী নিয়ে রাত্রি যাপনের উদ্দ্যেশ্যে কুয়াকাটা ও মৎস্য বন্দর আলীপুরে আবাসিক হোটেলে খুঁজতে থাকে। লকডাউনে আবাসিক হোটেল বন্ধ থাকায় লতাচাপলী ইউনিয়নের খাজুরা এলাকায় অপহরণকারীদের দুই বন্ধুর সাথে মুঠো ফোনে কথা বলে তাদের বাসার উদ্যেশ্যে নিয়ে যায় ।
এ অপহরণের বিষয়ে মোটরসাইকেল ড্রাইভার পুলিশকে জানান। মটরসাইকেল ড্রাইভারের তথ্য সুত্র ধরে অপহরণের সাড়ে ৫ ঘন্টা পর রাত সাড়ে ৩ টার দিকে অপহ্নত কিশোরীকে উদ্ধার করে পুলিশ।
মহিপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ মনিরুজ্জামান বলেন, উদ্ধার হওয়া ওই কিশোরীকে শুক্রবার (৯ এপ্রিল ) সকালে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে। এজাহারভুক্ত আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।###

Please Share This Post in Your Social Media




পুরাতন খবর

DEVELOP BY SJ WEB HOST BD
Design By Rana