শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৭:৫৪ পূর্বাহ্ন

সমুদ্র উপকূলে চলছে ২০ মে থেকে ৩০ জুলাই পর্যন্ত সকল প্রকার মৎস্য আহরণ নিষেধ

সমুদ্র উপকূলে চলছে ২০ মে থেকে ৩০ জুলাই পর্যন্ত সকল প্রকার মৎস্য আহরণ নিষেধ

জাকারিয়া জাহিদ, কুয়াকাটা প্রতিনিধিঃকুয়াকাটা, আলিপুর, মহিপুর মৎস্য বন্দর সহ, বাংলাদেশ সামুদ্রিক সকল প্রকার মাছ শিকার করার  নিষেধাজ্ঞা জারি করেছেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়।
দেশের সামুদ্রিক জলসীমায় মাছের প্রজনন বাড়াতে আগামী ২০ মে থেকে ৩০ জুলাই পর্যন্ত সব ধরনের মাছ ধরা নিষিদ্ধ করা হয়েছে।
বৃহস্পতিবার (১৫ এপ্রিল) এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করেছে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়।
সেখানে বলা হয়েছে, সামুদ্রিক জলসীমায় মাছের প্রজনন বৃদ্ধির পাশাপাশি উৎপাদন, সামুদ্রিক মৎস্য সম্পদ সংরক্ষণ এবং টেকসই মৎস্য আহরণের জন্য ২০ মে থেকে ৩০ জুলাই ২০২১ পর্যন্ত মোট ৬৫ দিন মৎস্য আহরণ নিষিদ্ধ করা হয়েছে।
এছাড়া বাংলাদেশের জলসীমায় বিদেশি ট্রলারের অবৈধ মৎস্য আহরণ রোধে গৃহীত কার্যক্রম জোরদারেও সভায় সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। নৌবাহিনী, জননিরাপত্তা বিভাগ, নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়, সশস্ত্র বাহিনী বিভাগ, পুলিশ, কোস্টগার্ড, র‌্যাব, নৌপুলিশ, সমুদ্রে মৎস্য আহরণকারী বিভিন্ন মৎস্যজীবী সমিতির নেতারা এবং উপকূলীয় জেলাগুলোর জেলা প্রশাসক এবং জেলা মৎস্য কর্মকর্তারা অনলাইন সভায় উপস্থিত ছিলেন।
নিষেধাজ্ঞা কার্যকরে এ সময়ে জেলেদের সহায়তা দিতে নানা উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। ৬৫ দিন গভীর সমুদ্রে বাংলাদেশ নৌবাহিনী ও সমুদ্র মোহনায় কোস্ট গার্ডের টহল জোরদার করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।এছাড়াও পোস্টার ও মাইকিংন এর মাধ্যমে উপকূলীয় অঞ্চল গুলোতে প্রচার প্রচারণা চালানো হয়েছে।অন্যদিকে এই আইন অমান্যকারীদের জরিমানাসহ বিচারের আওতায় আনা হবে।

Please Share This Post in Your Social Media




পুরাতন খবর

DEVELOP BY SJ WEB HOST BD
Design By Rana