শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৭:০০ পূর্বাহ্ন

ময়নাতদন্ত শেষে কলেজ ছাত্রীর লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর

ময়নাতদন্ত শেষে কলেজ ছাত্রীর লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর

শামীম আহমেদঃ বগুড়া থেকে কলেজ ছাত্রী স্ত্রীকে বরিশালের গৌরনদীর বাটাজোর এলাকার ভাড়াটিয়া বাসায় বেড়াতে নিয়ে এসে হত্যার পর লাশ গুম। নানা নাটকীয়তার পর হত্যাকান্ডের ১০দিন পর বস্তাবন্ধী অবস্থায় ধানক্ষেত থেকে উদ্ধার হওয়ার নাজনিন আক্তারের লাশের ময়নাতদন্ত শেষ হয়েছে।

পরবর্তীতে বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালের মর্গ থেকে আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে হতভাগ্য নাজনিনের লাশ তার পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়। বৃহস্পতিবার দুপুর দুইটার দিকে মর্গ থেকে লাশ গ্রহন করেন নিহত কলেজ ছাত্রী নাজনিনের বড় ভাই আব্দুল আহাদ।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, বগুড়া জাহাঙ্গীরাবাদ সেনানিবাসের পরিচ্ছন্নতা কর্মী ও বাবুগঞ্জ উপজেলার চরজাহাপুর গ্রামের আব্দুল করিমের পুত্র সাকিব হোসেন হাওলাদার তার কলেজ ছাত্রী স্ত্রী নাজনিন আক্তারকে গত ২৪মে গৌরনদীর বাটাজোর হরহর গ্রামের সাকিবের পিতার ভাড়াটিয়া বাসায় নিয়ে আসে। সেখানে স্বামী ও স্ত্রীর মধ্যে বাগ্বিতন্ডার জেরধরে সাকিব তার স্ত্রী নাজনিনকে হত্যা করে বাসার পিছনের সেপটিক ট্যাঙ্কের মধ্যে লাশ গুম করে।

এ ঘটনায় গত সোমবার বগুরা সদর থানা পুলিশের হাতে আটক হয় সাকিব। মঙ্গলবার গৌরনদী মডেল থানা পুলিশের সহায়তায় দিনভর লাশ উদ্ধারের জন্য অভিযান চালায় বগুরা সদর থানা পুলিশ। সাকিবের স্বীকারোক্তি মতে সেপটিক ট্যাংঙ্ক পরিস্কার করে তল্লাশী চালিয়ে সেখানে লাশ পাওয়া না গেলেও কলেজ ছাত্রীর পরিধেও ওড়না, শরীরের চামড়া ও নখ উদ্ধার করা হয়।

গৌরনদী মডেল থানার ওসি আফজাল হোসেন জানান, বুধবার সকালে স্থানীয় ট্রাক্টর চালক দুখু হাওলাদার হরহর গ্রামের বিলের মধ্যে জমি চাষ করতে গিয়ে বস্তাবন্ধী লাশ দেখে থানায় খবর দেয়। পরবর্তীতে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করা হয়।

বগুড়া সদর থানার এসআই গোলাম মোস্তফা জানান, সদর থানার সাপগ্রামের বাসিন্দা নিহত নাজনিনের পিতা আব্দুল লতিফের নিখোঁজ সাধারণ ডায়েরীর সূত্রধরে ঘাতক স্বামী সাকিব হোসেনকে গ্রেফতার করা হয়। প্রাথমিকভাবে ধারনা করা হচ্ছে নাজনিনকে হত্যার পর লাশ গুমের ঘটনায় সাকিবের পিতা-মাতাসহ একাধিক ব্যক্তি জড়িত রয়েছে। যা তদন্তে বেরিয়ে আসবে।

উল্লেখ, ফেসবুকে পরিচয়ের সূত্রধরে গত বছরের ৩০ সেপ্টেম্বর বগুড়া সদর উপজেলার সাবগ্রাম এলাকার আব্দুল লতিফের একাদশ শ্রেণীতে পড়–য়া কন্যা নাজনিন আক্তারকে প্রতারনার ফাঁদে ফেলে নোটারীর মাধ্যমে বিয়ে করে বরিশালের বাবুগঞ্জ উপজেলার নতুন চরজাহাপুর গ্রামের ভ্যানচালক আব্দুল করিম হাওলাদারের পুত্র ও বগুড়া জাহাঙ্গীরাবাদ সেনানিবাসের পরিচ্ছনতা কর্মী সাকিব হোসেন।

 

Please Share This Post in Your Social Media




পুরাতন খবর

DEVELOP BY SJ WEB HOST BD
Design By Rana