মঙ্গলবার, ২২ Jun ২০২১, ০৪:৪৮ অপরাহ্ন

পাথরঘাটায় গৃহবধুকে ধর্ষনে ব্যর্থ হয়ে স্বামী শাশুরিকে মারধর।

পাথরঘাটায় গৃহবধুকে ধর্ষনে ব্যর্থ হয়ে স্বামী শাশুরিকে মারধর।

নিজস্ব প্রতিবেদক : বরগুনার পাথরঘাটা কেওরা তলা গ্রামে চাচা শশুর কর্তৃক গৃহবধুকে ধর্ষনে ব্যর্থ হয়ে ভাতিজা ও ভাবিকে মারধর করেছে।পরে স্থানীয়রা আহতদের মূমুর্ষ অবস্থায় উদ্ধার করে শেবাচিমে ভর্তি করে।আহতরা হলেন কেওরাতলা গ্রামের হিরেন গাইনের স্ত্রী কনক গাইন (৬০) ও ছেলে সুনিল গাইন (৩৬) ।

আহত সুত্রে জানাগেছে গত ১০/১৫ দিন আগে হিরেন গাইনের ভাই ধিরেন গাইন তার ছেলের বিবাহ না হওয়ায় হিরেন গাইনের পরিবারের কাছে সাহায্য র জন্য আসে।এ সময় হিরেন গাইনের ছেলে সুনিলের কাছে তার ছেলে দিপকের বিয়ের বড় বেধে রেখেছে বলে জানান।

আর তা ঠিক করতে সুনিল গাইনের বউ অপর্ণা রানীকে প্রয়জন। অপর্ণা রানীকে দিয়ে এক শাসে গাছের পাতা ছিরে আনতে হবে বলে জানান।

পরে সুনিল তার চাচার অনুরধে তার স্ত্রী কে যেতে দেয়।আর সুযোগ কে কাজে লাগিয়ে ধিরেন তার লালসার শিকার বানায় ভাতিজা বউ অপর্ণা কে। পাশের বাড়ির রায়গো বাড়ির কোলায় ধর্ষনের উদ্দেশ্যে চেপে ধরে অপর্নাকে।এদিকে অপর্নার ডাক চিৎকারে কোলার পাশে মাছ ধরার লোকজন টর্চ লাইট মারলে অপর্নাকে ছেরে দেয় ধিরেন।

পরে এনিয়ে মান সন্মানের ভয়ে নিজেরা মিমাংসায় যায়।গত রবিবার অপর্ণা তার পাশের বাসার ননদ শান্তি রানী বাচ্চা দেখতে গেলে গালমন্দ শুরুকরে ধিরেন। আর এতে সুনিল প্রতিবাদ জানালে ধিরেন, তার ছেলে দিপক, বাবু গাইন,জোৎস্না রানী সহ অজ্ঞাত ২/৩ জন ধারালো দেশিও অস্রদিয়ে সুনিল গাইন কে এলোপাতরি কোপাতে থাকে।পরে তার মা কনক গাইন ছারাতে গেরে তাকেও কুপিয়ে যখম করে।পরে স্থানীয়রা আহতদের মূমুর্ষ অবস্থায় উদ্ধার করে পাথর ঘাটা হাসপাতালে ভর্তি করে।

শেখানে তাদের শাররিখ অবস্থার অবনতি দেখলে শেবাচিমে প্রেরন করে।এ বিষয়ে মামলার প্রস্ততুতি চলছে।

Please Share This Post in Your Social Media




পুরাতন খবর

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০  
DEVELOP BY SJ WEB HOST BD
Design By Rana